ধর্মপাশায় ৭টি গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্ভোধন

৫৭ Views
সাইফ উল্লাহ, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::
শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে, সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলাধীন মধ্যনগর থানার বংশীকুন্ডা দক্ষীণ ইউনিয়নের ৭ টি গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ শুভ উদ্ভোধন করেন সুনামগঞ্জ- ১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।
শুক্রবার বিকেলে বংশীকুন্ডা দক্ষীন ইউনিয়নের পিড়ালী মৌলার বাজারে বিদ্যুৎ সংযোগ করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সাবেক ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি মঞ্জুরুল হক। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।
বিশেষ অতিথি ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী বিপ্লব কুমার পাল, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি মনিন্দ্র চন্দ্র তালুকদার, আওয়ামীলীগ নেতা আজহারুল ইসলাম পিকে দিদার, মধ্যনগর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন, মধ্যনগর থানার আওয়ামীলীগ নেতা মোবারক হোসেন, অমরেশ চৌধুরী, জহিরুল ইসলাম, রহুল আমিন, ইউপি চেয়ারম্যান আজিম মাহমুদ, বিল্লাল হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক, ধর্মপাশা উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক শাহ আব্দুল বারেক ছোটন, সেলবরষ ইউপি আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বেনিয়ার হোসেন খান পাঠান, ধর্মপাশা শ্রমিকলীগের সহ সভাপতি মো. নুরুজ্জামান, সাবেক ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু সাঈদ।
অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন মধ্যনগর থানা যুবলীগের সভাপতি মো. মোস্তাক আহমেদ, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল ইসলাম খান রনি সহ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্ধ।
প্রধান অতিথি সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, বংশীকুন্ডা দক্ষীণ ইউনিয়নের দাতিয়াপাড়া, সাতুর, জগন্নাথপুর, তেলীগাও, আমানীপুর, খিদিরপুর, রংচী সহ ৭ টি গ্রামে ২ কোটি ৮২ লক্ষ  ১১ হাজার টাকা ব্যয়ে ১৪ শত ৫৩ টি পরিবারের মাঝে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে।
এমপি রতন আরও বলেন, সঠিক সময়ে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করুন, আপনারা যারা বিদ্যুৎ পেলেন সবাই মালিক, আমরা যারা দিলাম সবাই কর্মচারী। হাওরের উন্নয়ন না হলে বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই হাওরেও বিভিন্ন উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে। রাস্তা ঘাট, ব্রীজ, স্কুল কলেজ, ফসল রক্ষা বাঁধ, কৃষি, স্বাস্থ্য, স্থানীয় সরকার সহ বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন হচ্ছে।
আমাদের হাওরের জন্য গ্রাম প্রতিরক্ষা দেওয়া, কবর স্থান, ঈদগাও, একপাড়া হতে অন্যপাড়ার যাতায়াত ব্যবস্থা করা হবে। অচিরেই সুনামগঞ্জ টু নেত্রকোণা উড়াল সেতুর কাজ শুরু হবে এই সেতুর নাম শেখ হাসিনা উড়াল সেতু সুনামগঞ্জ। হাওরে নদী খনন করা হবে ইনশাল্লাহ।