বইমেলায় হাসান রাজীবের নতুন বই

মেহেদী হাসান মাসুদ, বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি::
অমর একুশে বইমেলায় হাসান রাজীবের নতুন বই পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন সময়ে প্রকাশিত ৮টি ছোট-বড় গল্পের সমন্বয়ে প্রকাশিত হয়েছে বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনি ‘কোথাও পৃথিবী নেই’।

মেলার প্রথম দিন থেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশের ৭০২ নম্বর স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে। শুদ্ধ প্রকাশ থেকে ‘কোথাও পৃথিবী নেই’ মেলায় এনেছে প্রকাশক হিরন্ময় হিমাংশু। প্রচ্ছদ করেছেন চারু পিন্টু। মূলত থ্রিলার, রোমান্টিক ও বৈজ্ঞানিক সব অজানা কল্পকাহিনি নিয়ে নতুন প্রজন্মের পাঠক ও কিশোর-কিশোরীদের জন্য চমৎকার কিছু গল্পের অবতারণা করা হয়েছে বইটিতে।

বইটির ফ্যাপে উল্লেখ করা হয়েছে, “বৈশ্বিক তাপমাত্রার বিরূপ প্রভাবে আমাদের এই সবুজ পৃথিবী ক্রমেই ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে চলে যাচ্ছে। পৃথিবীর উষ্ণতা বাড়তে বাড়তে একসময় তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে। আর এর জন্য আমরা নিজেরাই সবচেয়ে বেশি দায়ী। ভেবে দেখুন তো আমাদের সামনেই ধেয়ে আসছে মারাত্মক জলোচ্ছাস, ঘূর্ণিঝড়, ভূমিকম্পের মতো বিধ্বংসী প্রাকৃতিক বিপর্যয়। অথচ আমরা কিছুই করতে পারছি না। কে রক্ষা করবে আমাদের এবং এই পৃথিবীকে?”

“আমরা তো কোনোরকমে জীবন পার করে গেলাম; কিন্তু অমাদের অনাগত ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কী হবে? কীভাবে টিকে থাকবে পরবর্তী বংশধর। তাদের সুস্থ -সুন্দরভাবে বেঁচে থাকার জন্য আমরা কী করতে পেরেছি। বরং আমাদের বিলাসিতা, ভুল ও অপকর্মের খেসারত দিতে হবে আমাদের সন্তান এবং পর্যায়ক্রমে তাদের সন্তানদের। আমাদের প্রাত্যাহিক ছোটখাটো ভুলত্রুটি, অপচয়, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন, অতি যান্ত্রিকতা, হানাহানি, পরিবেশ ধ্বংস এসবই পৃথিবী ধ্বংসের মূল কারণ। তবে এখনো সময় আছে এ বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বনের। আর তা না পারলে আমরা সবাই হয়তো একসময় বলতে বাধ্য হবো ‘কোথাও পৃথিবী নেই’।”

বিষয় বিচিত্রতা, ভিন্ন স্বাদ আর নতুন মলাটের গন্ধে বইটি একটু হলেও পাঠকের মনকে দোলা দেবে বলেই লেখকের বিশ্বাস।

গত বছর অমর একুশে বইমেলায় হাসান রাজীবের কবিতা সংকলন ‘অরফিয়াসের বীণা’ এবং শিশুতোষ ছড়ার বই ‘দিন কেটে যায় ছন্দে’ বই দুটি পাঠক মহলে ব্যাপক সাড়া ফেলে।